বাড়ি কানাকানি বিয়ে নিয়ে রোদেলা জান্নাতের লুকোচুরি

বিয়ে নিয়ে রোদেলা জান্নাতের লুকোচুরি

10
0

বলা না বলা রিপোর্ট :

বিয়ের খবর গোপন করে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে গত বছর হইচই ফেলে দিয়েছিলেন জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। এজন্য বিজয়ী হওয়ার পরও মুকুট হারাতে হয়েছিল তাকে। শোনা যাচ্ছিল, শাকিব খানের পরবর্তী ছবি শাহেনশাহতে নায়িকা হতে যাচ্ছেন এভ্রিল। কিন্তু গত সেপ্টেম্বর মাসে হুট করেই শাকিবের নায়িকা হিসেবে সংবাদপাঠিকা রোদেলা জান্নাতের নাম ঘোষণা করা হয় শাহেনশাহ ছবির মহরতে। আর মাত্র কয়েকদিন বাদেই রোদেলার অভিষেক ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা। কিন্তু শুটিং শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে এসে শোনা যাচ্ছে রোদেলার বাগদান এবং বিয়ের গুঞ্জন। বছর তিনেক আগে তোলা রোহেল নামের একজনের সঙ্গে রোদেলার অন্তরঙ্গ ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। রোহেলের দাবি, রোদেলা তার বাগদত্তা। রোদেলা অবশ্য বিয়ে এবং বাগদানের খবরকে হেসে উড়িয়ে দিয়ে গুজব বলেই দাবি করেছেন। তবে তিনি স্বীকার করেছেন, রোহেল তার সাবেক প্রেমিক। তাদের মধ্যে গভীর সম্পর্ক ছিল এবং পারিবারিকভাবে বাগদানের কথাও হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের সম্পর্ক টেকেনি। রোদেলা নিজেই সেই সম্পর্ক ভেঙে দিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে রোদেলার ভাষ্য, রোহেল মিডিয়ার সঙ্গে জড়িত। মালয়েশিয়ায় থাকে। আমিও মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা করি। কিন্তু আমাদের মধ্যে কোনো যোগাযোগ নেই। একটা সময়ে আমাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই সম্পর্ক অনেকদূর এগিয়েছিল। পারিবারিকভাবে বাগদানের সিদ্ধান্তও হয়েছিল। কিন্তু পরে আমি সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসি। দুই বছর আগেই আমাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। এরপর আমরা একে অন্যের ছায়াও মাড়াইনি।

রোহেল নিজের ফেসবুক পাতায় লিখেছেন, রোদেলা তার বাগদত্তা। এ বিষয়ে রোদেলার মন্তব্য, সে কী লিখেছে না লিখেছে তাতে আমার কিছু যায় আসে না। সত্যটা হলো, আমাদের বাগদান হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তা হয়নি। আমাদের মধ্যে যখন প্রেমের সম্পর্ক ছিল তখন সে আমাকে পাগলের মতো ভালোবাসতো। হয়তো এ কারণেই আমাকে নিজের বাগদত্তা দাবি করেছে সে। আর বিয়ের গুঞ্জন নিয়ে রোদেলার ভাষ্য, আকাশে চাঁদ উঠলে সবাই দেখতে পায়। বিয়েও অনেকটা এরকমই একটি বিষয়। বিয়ের মতো এত বড় ঘটনা কোনোভাবেই ধামাচাপা দেওয়া যায় না। শত চেষ্টা করেও বিয়ের কথা লুকানো সম্ভব নয়। রোহেলের সঙ্গে আমার বিয়ের খবরটি গুজব ছাড়া আর কিছুই না। এতে বিন্দুমাত্র সত্যতা নেই।

রোদেলা জান্নাত আরও বলেন, আসলে একটি স্বার্থান্বেষী মহল ইচ্ছেকৃতভাবে এসব গুজব ছড়াচ্ছে যাতে চলচ্চিত্রে আমার ক্যারিয়ার বাধাগ্রস্ত হয়। চলচ্চিত্রের রঙিন জগতে হাঁটতে শুরু করার আগেই আমাকে এ ধরনের চক্রান্তের শিকার হতে হলো। সত্যিই এই জগৎ জটিলতায় ভরা। প্রথম ছবিতে দর্শক যদি আমাকে গ্রহণ করেন তাহলেই কেবল অভিনয় চালিয়ে যাব। অন্যথায় চলচ্চিত্র জগতের সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখবো না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here